September 23, 2021
Who is the best Virat Kohli or Babar Azam

কে সেরা বিরাট কোহলি নাকি বাবর আজম? Who is the best Virat Kohli or Babar Azam?

Who is the best Virat Kohli or Babar Azam?

Who is the best Virat Kohli or Babar Azam

আসসালামু আলাইকুম, আশা করি সবাই ভালো আছেন। আলহামদুলিল্লাহ আমিও ভালো আছি। বন্ধুরা আজকের এই পোস্টে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো কে সেরা বিরাট কোহলি নাকি বাবর আজম? Who is the best Virat Kohli or Babar Azam?

তো বন্ধুরা আজ আমি আপনাদের সাথে এই দুইজন ব্যক্তির ক্যারিয়ার নিয়ে কথা বলতে চাচ্ছি ,তারা দুই দেশের দুই উজ্জ্বল নক্ষত্র ভারতের বর্তমান সময়ের সফল ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি আর অন্য দিকে পাকিস্তানের সফল ব্যাটসম্যান বাবর আজম।

বর্তমান দুইজনই দুই দেশের তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক। কিন্তু নিজেদের ক্যারিয়ার নিয়ে বহুবার আলোচনার জন্ম দিয়েছেন এই দুইজন খেলোয়াড়। কারণ বর্তমান সময়ে সেরা ব্যাটসম্যান বলা হয় এই দুইজনকেই। ক্রিকেট বিশ্লেষকরা নানা ধরণের মত দিলেও এই দুই ব্যাটসম্যানের সমর্থকরা তা মানতে নারাজ। কারণ কারো কারো মতে কোহলি সেরা কারো মতে বাবর আজম সেরা।

এই নিয়ে ক্রিকেট বিশ্বে চলছে নানা সমলোচনা। আর সেই সমালোচনা উড়িয়ে দিয়ে আজ আমরা জানব এক দিনের খেলায় কে সেরা,কোহলি নাকি বাবর আজম। তো বন্ধুরা চলুন দেখা যাক একদিনের ক্রিকেট খেলায় কে সেরা?

বিরাট কোহলি (Virat Kohli) Who is the best Virat Kohli or Babar Azam

Virat Kohli

বিরাট কোহলির একদিনের খেলায় অভিষেক হয় শ্রীলংকার সাথে ২০০৮ সালে ১৮ই আগস্ট ডাম্বুলাতে। কোহলি ছিল টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যান। কিন্ত সেই সময়ে টপ অর্ডারে ব্যাট করতো টেন্ডুলকার,শেবাগ,সৌরভ গাঙ্গুলি,গম্ভীরদের মত খেলোয়াড় যার কারণে কোহলি তেমন একটা খেলার সুযোগ পেত না। তবে সিনিয়রদের সরে যাওয়ার পর ভারতীয় ক্রিকেট টিমে নিজের জায়গা পাকা পোক্ত করে নেন এই ক্রিকেটার।
তার পর থেকে আর পিছনে তাকাতে হয় নি। খেলে গেছেন একের পর এক দুর্দান্ত এক ইনিংস।

২০১১ বিশ্বকাপে ছিল অন্যন্য ভূমিকা। এবং ২০১২ সালে আইসিসি একদিনের খেলায় বর্ষ সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন। আবারো দলের হয়ে ২০১৩ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফি জিতেন। তার নেতৃত্বে ভারত টিম ২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফির ফাইনাল খেলেন। আর এভাবেই ক্রিকেট বিশ্বকে নিজেকে চিনিয়েছেন। বিরাট কোহলি একদিনের খেলায় অংশ গ্রহণ করেছেন ২৫১ ম্যাচ, ব্যাট করেছেন ২৪২ ম্যাচে।
রান করেছেন ১২ হাজার ৪০ রান। সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ৪৩ বার আর হাফ সেঞ্চুরি করেছেন ৬০ বার। সর্বোচ্চ স্কোর ১৮৩ রান। তার ব্যাটিং গড় ৫৯.৩১ তাছাড়া ব্যাটিং স্ট্রাইক রেট ৯৩.২৫ এছাড়াও তিনি একদিনের খেলায় ৩৯ বার অপরাজিত ছিলেন।

তাছাড়া দলের প্রয়োজনে তিনি কখনো বল হাতেও নিয়েছেন। তিনি ২৫১ ম্যাচে ৪৮ বার বল হাতে নিয়ে শিকার করেছেন ৪ টি উইকেট। তার বোলিং ইকোনোমি রেট ছিল ৬.২২ পার ওভার। বর্তমান আইসিসি ব্যাটসম্যান ওয়ান ডে রাঙ্কিং ১ এ অবস্থান করছেন। আর এভাবেই তিনি তার ক্যারিয়ার সাজিয়ে যাচ্ছেন।

আরও পড়ুনঃ  
>>>Top 5 Popular Apps in The World | বিশ্বের শীর্ষ ৫ টি জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশন
>>> ডায়াবেটিস কি ও কেন হয়?

 

বাবর আজম (Babar Azam) – Who is the best Virat Kohli or Babar Azam

Babar Azam

বাবর আজমের একদিনের খেলায় অভিষেক হয় জিম্বাবুয়ের সাথে ২০১৫ সালে ৩১শে মে গাদ্দাফিতে। বাবর আজম টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যান। তিনি শুরু থেকেই আগ্রাসী খেলে অল্প দিনের মধ্যে নিজেকে বিশ্বমানের ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে তোলেন। আস্তে আস্তে হয়ে ওঠেন পাকিস্তান টিমের কেন্দ্রবিন্দু। দলের হয়ে ২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফি জিতেন।

বাবর পাকিস্তানের হয়ে ওয়ান ডে খেলেছেন মোট ৭৭ টি ম্যাচ এবং ব্যাট করেছেন ৭৫ টি ম্যাচে। রান করেছেন ৩৫৮০ রান। সেঞ্চুরি করেছেন ১২ টি এবং হাফ সেঞ্চুরি করেছেন ১৬ টি। সর্বোচ্চ স্কোর ১২৫ রান। তার ব্যাটিং গড় ৫৫.৯৪ এবং স্ট্রাইক রেট ৮৭.৮৭
এছাড়াও তিনি ১১ বার অপরাজিত ছিলেন। তিনি বল করতে পারেন না। বর্তমান তিনি আইসিসি ওয়ান ডে ব্যাটসম্যান র্যাংকিং ৩ এ অবস্থান করছেন। বাবর আজমও একজন বিশ্বমানের ক্রিকেটার তা তিনি সময়ের সাথে মানুষকে বুঝিয়ে দিয়ে যাচ্ছেন।

কে সেরা? (Who is the best?) Who is the best Virat Kohli or Babar Azam

আপনারা দেখতেই পাচ্ছেন যে কোহলির যখন ওয়ান ডে অভিষেক হয় তার ৭ বছর পর অভিষেক হয় বাবর আজমের। তো বর্তমানে আন্তজার্তিক অঙ্গনে বাবরের থেকে কোহলি অনেক মজবুত। কারণ কোহলি যেখানে ২৫০+ ম্যাচ খেলেছে সেখানে বাবর খেলেছে ৭৫ টি ম্যাচ।

এছাড়া বেশিরভাগ ক্রিকেট বিশ্লেষকরা গড় হিসাব করে ব্যাটসম্যানদের বিচার করে যা মোটেও বোধগম্য নয়। কারন আপনি যদি এদের ম্যাচের দিকে তাকান তাহলে দেখবেন বিরাট কোহলি এত গুলা ম্যাচ খেলে নিজের ধারাবাহিক ফর্ম ধরে রেখেছেন সেখানে বাবর কি পারবে কোহলির মত এত গুলা ম্যাচ খেলে কোহলির জায়গায় যেতে?

আপনি একটা জিনিস দেখতে পারেন কোহলি ভারতের হয়ে খেলেছেন এক যুগের বেশি সময় সেখানে বাবর খেলেছেন মাত্র ৫ বছর। বুঝতেই পারছেন আজকের এই কোহলির জায়গায় পৌঁছাতে হলে বাবর আজম কে কত কাঠখোৱা পড়াতে হবে?

আর যদি আমরা রেকর্ড এর দিকে যাই তাহলে ক্রিকেট ইতিহাসের অনেক রেকর্ডই এই দুইজন ব্যাটসম্যান নিজেদের করে নিয়েছেন। তবে রেকর্ডের দিক দিয়ে এখানে অব্যশই কোহলি এগিয়ে থাকবেন। এ থেকেই বুঝা যায় অবশ্যই এই দুই জনের মধ্যে বিরাট কোহলি এগিয়ে থাকবেন।

যদিও কোহলির বয়স ৩২ আর বাবর আজমের বয়স ২৬ বছর তো দুই জনই নিজেরদের প্রমানের অনেক সময় পাবেন। দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কে কোথায় থামে এটাই দেখতে চায় ক্রিকেট বিশ্ব। দুইজনের জন্যই রইল শুভকামনা। ওকে বন্ধুরা আজ এই পর্যন্তই দেখা হবে আবারো নতুন একটা বিষয় নিয়ে ততক্ষন ভালো থাকুন। আল্লাহ হাফেজ।

 

এই ছিল আজকের পোস্ট, আশা করি ভালো লেগেছে। এই রকম আরও পোস্ট পেতে চাইলে আমাদের সাথেই থাকুন। পোস্ট যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে, আমাদের পোস্ট গুলি শেয়ার করতে ভুলবেন না।কেমন লেগেছে তা অবশ্যই কমেন্ট করে জানতে ভুলবেন না যদি কোনো ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই ক্ষমা সন্দুর দৃষ্টিতে দেখবেন

ধন্যবাদ আর্টিকেলটি পরার জন্য, ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন আজকের মত আল্লাহ্‌ হাফেজ।

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন আমাদের সাথে। যুক্ত হতে – এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.