September 22, 2021
Samsung Galaxy Z Fold 2

Samsung Galaxy Z Fold 2 | স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড টু

Samsung Galaxy Z Fold 2 | স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড টু

আস্সালামুআলাইকুম বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই। আশা করি সবাই ভালো আছেন। হ্যা বন্ধুরা আমি ও ভালো আছি আপনাদের দোয়ায়। তো বন্ধুরা আজকে আমরা আলোচনা করবো স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড টু নিয়ে।

বর্তমান যুগে স্মার্ট ফোন ছাড়া একটা দিনও কল্পনা করা যায় না। স্মার্ট ফোন এখন আর কোনো সৌখিন বস্তু নয় বরং অতি প্রয়োজনীয় যন্ত যা আমাদের নিত্য দিনের সঙ্গী এমন কি সবচেয়ে কাছের বন্ধু।

তাই তো বিভিন্ন Techzone আরও বড় বড় ফোন প্রস্তুতকারী কোম্পানি গুলোও স্মার্ট ফোন ক্রমবিকাশে প্রতিনিয়ত চালিয়ে যাচ্ছে গবেষণা। একের পর এক বাজারে আনছে নিত্য নতুন ফিউচার আর সুযোগ সুবিধা সম্পূর্ণ স্মার্টফোন যার কোনো টিতে থাকছে সব শেষ প্রযুক্তি। কোনো টাতে থাকছে আবার চমক পদ ডিজাইন বা এমন কোনো অত্যাধিক সুবিধা নিয়ে তৈরী যা পুরোপুরি অভিনব বাজারে ইতি মধ্যে চলে আসা কিংবা নিকট ভবিৎষতে আসবে এমন এক বা একাধিক স্মার্টফোন নিয়ে flashfilex নতুন এই আয়োজনে আজ থাকছে Samsung Galaxy Z Fold 2 স্মার্টফোনটি নিয়ে বিস্তারিত।

Samsung Galaxy Z Fold 2 দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক বৃহৎ মোবাইল ফোন নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান স্যামসাং ইলেক্ট্রনিক্স তাদের নতুন ফোনটি বাজারে আনার প্রথম ঘোষণাটি দেন আগস্টের প্রথম সপ্তাহে পাশাপাশি আরো ডিভাইস বাজারে আনার কথা দেয় একি সময়ে Samsung Galaxy note 20, Samsung Galaxy tab S7, Galaxy Buds Live এবং Samsung Galaxy Watch 3 উল্লেখ যোগ্য।

Samsung Galaxy Z Fold 2

তবে সবাইকে ছাপিয়ে Samsung Galaxy Z সিরিজের এই এই ফোনটিকে ঘিরেই যত আগ্রহ আর কৌতূহল স্মার্ট ফোন ব্যবহার কারীদের। তার কারণটাও অযুক্তির কিছু নয় অবশ্য আকর্ষণীয় ডিজাইন আর বর্তমান কেইন্ট হ্যাংলা পাতলা শরীরকে পুরোপুরি বুড়ো আঙ্গুল দেখানো 5G এই সেট টির মূল বৈশিষ্ট হলো এটি পুরোপুরি ভাবে ফোল্ডিং তথা বইয়ের মতো ভাস করা বা খোলা যায়।

ফোনটি আকার আকৃতিতে বড় হওয়ায় তাই অন্য কোনো স্মার্টফোনের বড় ভাই হিসাবে একে পরিচয় করে দেওয়া যেতেই পারে। এর আগে Samsung যে ফোল্ডিং সেটটি বাজারে আনে সেটির নাম ছিলো Galaxy Fold এবার এটি দ্বিতীয় ভার্সন বলে নাম করণ করা হয়েছে Samsung Galaxy Z Fold 2 যেখানে যুক্ত হয়েছে আরো কিছু চমৎকার কিছু বৈশিষ্ট। ফোনটি বিশ্ব বাজারে আসে মাত্র কয়েক দিন আগে গেলো ১৮সেপ্টেম্বর।

এবার ফোনটির ডিজাইন আর স্পেসিফিকেশন নিয়ে আলোচনা করবো:

মূল ফোল্ডিং সেটটির মতো এটি সম্পর্ণ প্ল্যাস্ট্রিক এর স্ক্রিন যুক্ত স্কাউট এজির উপাদান দিয়ে জেট শিপের মতো একটি প্ল্যাস্ট্রিকের লেয়ারে সুরক্ষিত ত্রিশ মাইক্রোমিটার পাতলা আলট্রা থিন গ্লাস দিয়ে তৈরী চেক ফোর টু প্রচলিত গোরিলা গ্লাসের চাইতেও মজমুত আর টেকসই পলিশ কর্নিল গরিলা গ্লাস ভিক্টর্স যা এলুমিনিয়াম ফ্রেমের সাথে ফোনটির পিছনের পেনেল গুলির জন্য ব্যবহার করা হয়েছে।

এছাড়া হিসমেকানিজম বা কবজা করণীয় প্রক্রিয়াটি ধারণ করা হয়েছে Z ফিফ মডেলটিতে থেকে ধূলো ময়লা থেকে রক্ষা করতে ব্যবহার করা হয়েছে লাইলোন ফাইভার। ফোনটি ৭৫ থেকে ১১৫ ডিগ্রি পর্যন্ত সেলফ সাপোটিং, পাওয়ার বাটনটি ফ্রেমের মাঝে ইনভেট করা হয়েছে যার ওপরে ভলিউম রোকার সহ ফিঙ্গার পিন সেন্সর।

Samsung Galaxy Z Fold 2

প্রধানত দুইটি রঙে ডিভাইসটি পাওয়া যাচ্ছে বাজারে একটি মিস্টিকব্রন্স এবং অপরটি মিস্টিক ব্ল্যাক। পাশাপাশি থম ব্রাউন মডেলটি সীমিত সংস্কারে পাওয়া যাবে তবে নির্দিষ্ট কিছু ব্যবহার কারীরা স্যামসাংয়ের ওয়েবসাইট থেকে অর্ডার করার সময় ফোনের নিজ কালার টি পছন্দ মতো কাস্টমাইজ করতে পারবেন।

এবার জানবো Samsung Galaxy Z Fold 2 Display সম্পর্কে :

এযাবৎ কালে অন্তত Galaxy Fold সেটটি আসার আগ মুহূর্ত অবদি যে সকল ফোল্ডিং সেট আপনারা দেখছেন তা সাধারণত একটি ডিসপ্লে নিয়েই গঠিত।

এ ক্ষেত্রে Galaxy Z Fold 2 এ রয়েছে দুটি স্পে এর সম্মক ভাগে কভারটি নূন্যতম বেজোল সহ মাঝখানে ৬.২৩ ইঞ্চি ডিসপ্লে নিয়ে গঠিত। যাইহোক, পূর্বে ৪.৬ ইঞ্চি মডিটির তুলনায় উল্লেখযোগ্য আকারে বড় আর গোটা ডিভাইস টি পুরোপুরি মিলে ধরলে ডিসপ্লের দৈর্ঘ দাঁড়ায় ৭.৬ ইঞ্চি।

ডিসপ্লেতে ডায়নামিক্স এমোলেট টু এক্স যার ইস্পিন থেকে নীল আলো নির্গত হওয়া হ্রাস করে। ফলে এটিকে কোনো ল্যাপলেট আকারে দেখার অভিজ্ঞতা নিতে পারেন এবং কয়েক ঘন্টা উপভোগ করতে পারেন। মোবাইল ডিসপ্লে HD এক্টিং গ্লাস সাপোর্ট করে অভ্যন্তরীন ডিসপ্লেটি S20 সিরিজ এবং note 20 আলট্রা থেকে অবিচার্যিত যা ১২০ হার্স রিফ্রেস পেতে সুবিধা দেয়।

ফোনটির রয়েছে ১২জিবি LP ডিডিয়ার ফাইভ ইন্টারনাল Ram এবং ২৫৬ বা ৫১২ জিবি পর্যন্ত নন এক্সপ্যান্টটেবল রোমের ৩.১ufs .
Z Fold 2 কল কমস স্নেপ ড্রাগন এইটা সিক্সটি ফাইভ প্লাস চিপস দ্বারা চালিত যা সমস্ত অঞ্চলে ব্যাবহৃত হয়। বাজারের ওপর নির্ভর করে অন্যান্য স্যামসাং এর তুলনায় স্নেপ ডাগল এবং স্যামসাং অভ্যন্তরীন এক্সসি মিস চিপস গুলো মধ্যে বিভক্তি রয়েছে।

Samsung Galaxy Z Fold 2

ফোনটি দেখতে যতটা না চমৎকার তার চেয়ে শক্তিশালী এটির বেটারী মোটামোটি বড় সাইজের ৪৫০০মিলি আম্পিয়ার ক্ষমতা সম্পর্ণ লিথিয়াম পলিমান নন রিলিভাবল ফাস্ট চার্জিং বেটারিতে আছে দুটি বেটারির শক্তি USB সি ২৫ ওয়াট পর্যন্ত। আর ওয়্যারলেস ১১ ওয়াট পর্যন্ত QY এর মাধ্যমে দ্রুত চাজিং এ সক্ষম যা আপনাকে প্রায় আড়াই দিন পর্যন্ত বেকআপ দিবে।

Samsung Galaxy Z Fold 2 যত গুলা ক্যামেরা ?

Samsung Galaxy Z Fold 2 য়ে রয়েছে পাঁচটি ক্যামেরা যা তিনটি রয়েছে পিছনে আর দুটি রয়েছে সামনে। বেক ক্যামেরার তিনটির একটির লেন্স 12mp আর একটি 12mp টেলিফোটো আর তৃতীয়টি আলট্রা ওয়েড আঙ্গেল লেন্স।

অন্য দিকে সামনে 10mp ফন্ট ফিসিং ক্যামেরা দুটি একটি কভারের ওপর আর একটি স্ক্রিনের ভেতর অবস্থিত। তাছাড়া Flex Mode আপনাকে যেকোনো কোণে ফোল্ড করতে এবং আপনার পছন্দ মতো যেকোনো ভাবে দরে রাখতে দেবে। ফলে Flex Mode এর মাধ্যমে আপনি অভিনব কোণ থেকে খুব সহজেই ভিডিও করতে পারবেন এবং ক্যাপচার করার সমস্ত কিছুতেই আকর্ষণীয় আঙ্গেল যুক্ত করতে পারবেন।

Samsung Galaxy Z Fold 2

এছাড়া মূল স্ক্রিনে Flex বিটি ব্যবহার করার সময় এটি গুটিয়ে ফেলতে এবং এটি google Duo এর সাথে হ্যান স্প্রীড ভিডিও কল করতে পারেন অথবা আপনার প্রিয় শোটি দেখার জন্য এটিকে সমক্ষে কভার ভিতে ফিলিফ করে আরাম দায়ক স্থানে রাখতে পারেন।

Multi Window Mood :

এন্ডুয়েড টেন এবং স্যামসাং এর ওয়ান EY এর সফটওয়ার সমদ্বিদত Z Fold 2 এর একটি দারুন সুবিধা হলো উন্নত মাল্টি উইন্ডো মুডের মাধ্যমে তিনটি এপ্লিকেশন ওয়ান স্ক্রিনে রাখা যায়। অর্থাৎ আপডেট করা মাল্টি উইন্ডো লে আউট এবং এক কন্টিনিউএর সাহায্যে ফোনটির কভার স্ক্রিনে দুটি এপ্লিকেশন দিয়ে মাল্টি টাচটি করতে পারেন। চাইলে আবার মূল স্ক্রিনে নিয়ে যেতে পারেন।

আবার স্প্রীড স্ক্রিনের সাহায্যে তৃতীয় এপ্লিকেশন টি খুলতে পারেন এবং তারপরে যেকোনো স্প্রীডেতে কাজ করতে বা গেম খেলতে বা যা খুশি করতে চান কেবল সেখানে চাপ দিয়েই তা করতে পারবেন। তাছাড়া এপ্লিকেশন গুলো মূল স্ক্রিনের জন্য অফটিমাইজ করা যাতে আপনি সহজেই ফোনটি খুলে ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে ইউ আই বিরামিন ভাবে সামজ্জ ভাবে কাজ টি করা যায় যাতে যেকোনো ভিডিও বা ছবি আপনি সিলেক্ট করা মাত্র রেজিলেশন না ভেঙ্গে যেন স্ক্রিনে ফিট হয়।

আরও পড়ুনঃ ১৪ হাজার টাকায় গেমিং ফোন! Realme Narzo 20 স্মার্টফোন রিভিউ

 

Galaxy Z Fold 2 5G আপনাকে ছবি তোলার আগে যে শর্ট টি সবাই পছন্দ করছে তা নিশ্চিত করতে আপনাকে উভয় স্ক্রীন ব্যবহার করার সুবিধা দেয়। মূল স্ক্রীনে কেবল আপনার শর্ট ফিল্ম করুন কভার স্ক্রীন টি আপনার সাবজেক্ট একটি প্রিভিউ দেবে যাতে ক্যামেরায় স্নেপ নেওয়ার আগে পোজ দিতে পারে তথা প্রস্তুতি নিতে পারে।

কিছু ডিভাইস এর জন্য 5G এখন একটি স্বপ্ন হলেও Galaxy Z Fold 2 5G এর জন্য ঠিক চিপের মতো নির্মিত একটি পরবর্তী একটি নতুন স্তনের সংযোক গতি এবং নির্ভরযোগ্যতা সরবরাহ করে। সুতরাং ভবিৎষতে অভিভাব আসুক না কেন আপনি তার জন্য সদা প্রস্তুত যদি আপনার কাজে থাকে Galaxy Z Fold 2 5G স্মার্টফোনটি।

Samsung Galaxy Z Fold 2

বন্ধুরা তাহলে আপনারা বুঝতেই পারছেন যে Galaxy Z Fold 2 আপনাদের জন্য কি নিয়ে আসছে। তবে বন্ধুরা আমরা শুদু আপনারদের এতটুকুই জানাতে চাই যে বর্তমান বাজারে এরকম ফোন প্রথম আসলো যা টেক বিশ্বে এই প্রথম। যদি আপনাদের এই ফোন সম্পর্কে আরো জানতে চান তাহলে অবশ্যই আপনি Google সার্চ করে জানতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ বাংলা দেশের নতুন সংযোজন স্যামসাং গ্যালাক্সি এম২১। Samsung galaxy M21

এই ছিল আমাদের আজকের আয়োজন আশা করি আপনাদের ভালো লেগেছে। এতক্ষন সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। এরকম আরো ভালো ভালো ফোনের রিভিউ পড়তে চাইলে আমাদের সাথেই থাকুন। সেই সাথে আমাদের কন্টেন্ট যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে লাইক ,কমেন্ট এবং শেয়ার করতে ভুলবেন না। আল্লাহ হাফেজ।

Writing By
Rimon Hossain

Leave a Reply

Your email address will not be published.