September 22, 2021
Redmi Note 10 Pro

Redmi Note 10 Pro Full Review

Redmi Note 10 Pro

হাই বন্ধুরা কেমন আছো সবাই? আশা করি সবাই ভালো আছো। আমিও ভালো আছি আপনাদের দোয়ায়। তো বন্ধুরা আমরা অনেক সময় দেখি অল্প বাজেটে সেরকম ভালো ফোন কিনতে পারি না। কিন্তু বর্তমান যুগে এমন একটা পরিস্থিতি তৈরী হয়েছে যে এখন আমরা অল্প বাজেটে ভালো মানের স্মার্ট ফোন কিনতে পারি।

কারণ বর্তমান বিশ্বে সকল টেক জায়ান্ট কোম্পানি গুলো পাল্লা দিয়ে নিত্য নতুন ফোন বাজারে আনছে। সেই ফোন গুলাও একে অপরকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে দিনের পর দিন। আজ আমরা সেই রকম একটা ফোনের রিভিউ নিয়ে কথা বলব। তো বন্ধুরা আপনারা সবাই জানেন বর্তমান বাজারে নামি দামি ব্র্যান্ডের মধ্যে xiaomi একটা।

আজ থেকে প্রায় ১১ বছর আগে লেই জুনের হাত ধরে বিশ্বে পদার্পন করে xiaomi কোম্পানি। সেই থেকে বিশ্বকে দিয়ে যাচ্ছে একের পর এক চমক। তবে এই কোম্পানির অন্য সব পণ্যের চেয়ে বর্তমান বাজারে তাদের গড়া স্মার্ট ফোন গুলা এখন বিশ্বমানের। তবে স্মার্ট ফোনের মধ্যে রেডমি নোট সিরিজ তা একের পর এক চমক দেখিয়েই যাচ্ছে। আজ আমরা সেই রেডমি নোট সিরিজের একটা ফোন নিয়ে আলোচনা করবো। আর সেটি হল Redmi Note 10 Pro Full Review.

Redmi Note 10 Pro

রেডমি নোট ১০ সিরিজে ফোন গ্লোবালি এবার ৪ টা ফোন লন্স হইছে তার মধ্যে হল

১. Redmi Note 10
২. Redmi Note 10 Pro
৩. Redmi Note 10 5G
৪. Redmi Note 10 S

আবার এই Redmi Note 10 Pro ভারতেও লন্স হয়েছে সেটা হল Redmi Note 10 Pro Max আর হ্যা আপনাদের একটা কথা বলে রাখি আমাদের দেশে Redmi Note 10 Pro মানেই ভারতে Redmi Note 10 Pro Max .তবে এই দুইটা ফোন এক হলেও কিছুটা ভিন্ন আছে আর সেটা হল ক্যামেরা এই ফোনের ক্যামেরা ১০৮ মেগা পিক্সেল আর ভারতের টায় ৬৪ মেগা পিক্সেল এই হল পার্থক্য। তো বন্ধুরা চলুন এবার মূল কোথায় আসি।

Xiaomi Bangladesh প্রতিবারের মতো এবার Redmi Note 10 সিরিজের বেশ কয়টি ভেরিয়েন্ট নিয়ে আপনাদের মাঝে চলে আসছে। Xiaomi এবারে Redmi Note 10 সিরিজে সব গুলা ফোনে একই লুক দিয়েছে। আপনি এই ফোনে ২৫০০০ হাজার টাকার ফোনের বডি পাবেন আমি মনে করি। Note 10 এর পিছনে প্লাস্টিক দিয়েছে কিন্তু Note 10 pro তে পিছনে গ্লাস দিয়েছে। তবে এটার সাথে প্লাস্টিক থাকতে পারে যেটা হবে গ্লাসটিক। যদিও এটার কোন প্রটেকশন নাই মনে হয়।

তবে overall এই ফোনের হ্যান্ড ফিল খুব ভালো। সুন্দর কার্ভ করার সাথে এটার ওজন ১৯৩ গ্রাম। সামনে থেকে দেখলে এটা সবারই পছন্দ হবে বলে আমি মনে করি। তবে এই ফোন ৩ তা কালার পাবেন আপনারা। সব কালার গুলোই সুন্দর। কালার গুলো হল :

১. Onyx Gray
২.Glacier Blue
৩. Gradient Bronze

Redmi Note 10 Pro
এই কালার গুলার মধ্যে Gradient Bronze কালারটা সব চাইতে ভালো হবে বলে আমি মনে করি। কারন বাহিরের থেকে দেখতে এটা অনেক সুন্দর লাগে। এই ফোনে হেডফোন জ্যাক উপরের দিকে সেকেন্ডারি স্পিকার, মাইক্রোফোন নিচের দিকে তাছাড়াও প্রাইমারি স্পিকার এবং টাইপসিবোর্ড নিচে।

এছাড়াও পাওয়ার বাটন আর Fingerpint একসাথে। Fingerpint খুব দ্রুত কাজ করে। কারণ আপনি এখন প্রায়ই দেখে থাকবেন যে এই ধরণের Fingerpint এখন অনেক ফোনে ব্যবহার হয়। ফোনের একপাশে একটি slot bar রয়েছে যেখানে ২ টি সিম কার্ড ও একটি মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া বডিতে দেখার মতো ক্যামেরা ছাড়া আর কিছু নেই। ১০৮ মেগা পিক্সেল সেন্সর এর কারণে ক্যামেরা বামটা অনেক বড়।

ক্যামেরার পাশে লেখা ultra primium এটা কি কারণে লিখছে জানি না। এই প্রথম Redmi Note 10 Pro তে samsung ফোনের অয়ামুলেট দিছে তাও আবার ১২০ হার্জ রিফ্রেসেট ২৪ ডেয়ারজেট টাস সিমপ্লিনরেট নিয়ে বিশাল বড় একটা ফোন নিয়ে তারা হাজির হয়েছে। রিফ্রেশ রেট যদিও এডাপ্টটিভ না কারন এটা ১২০ হার্জ রাখতে পারে না ১০০ বা ৯০ এরকম দেখায়। তাছাড়া সম্পূর্ণ টাচ ছিল একদম অসাধারণ। এছাড়াও ফোনে রয়েছে

6.67″ AMOLED Dot Display
Resolution 2400 * 1080 FHD+
Contrast Ratio 4,500,000:1
Brightness: HBM 700 nits (typ)
1200 nits peak brightness (typ)
DCI-p3 colour gamut
8-bit colour
HDR 10
Refresh rate: 120 Hz
Touch sampleting rate: 240 Hz
Reading Mode 3.0
Sunlight Mode 2.0
SGS Eye Care Display Certification
SGS Performance tested rate: Seamless Pro

Redmi Note 10 Pro

এগুলা মোটামুটি ভালো। তাছাড়া ডিসপ্লে লাইট outdoor এবং indoor খুব ভালোই মনে হল আমার। তবে আমি একটা কথা বলতে পারি যারা এই ফোনটি কিনবেন তারা ডিসপ্লে বিষয়টি নিয়ে ভাবতে হবে। দুই স্পিকার ভালোই সার্ভিস দেয় তবে আরো একটু দিলে ভালো হত আমার মনে হয়। তবে এই ফোনের সবচেয়ে ভালো জায়গাটা হল এর ক্যামেরা সেটআপ।

108MP WIDE-ANGEL CAMERA
0.7 Qm pixel size 9-in-1 to 2.1 Qm Super Pixel
1/1.52″ Sensor Size f/1.9
8MP Ultra WIDE-ANGEL CAMERA
FOV 118 Dgri f/2.2
5MP TELEMACRO CAMERA
F/2.4
AF
2MP DEPTH SENSOR
F/2.4

Redmi Note 10 Pro
এখানে মেইন ক্যামেরাটা সবচেয়ে ভালো। কারণ ছবি তুললে একই রেট কালার পাওয়া যায়। ডাইনামিক লেন্স তা আর একটু ভালো হতে পারতো। তবে বলতে হবে ক্যামেরা ডিটেলস টা একদম অসাধারণ। তাছাড়া আলট্রা ওয়াইড ক্যামেরা আর ওয়াইড এঞ্জেল ক্যামেরা একদম ঠিক ছিল। দিনে এবং রাতে এর ছবি গুলো দেখার মতো ছিল। কিন্তু একটা সমস্যা দেখতে পেয়েছি সেটা হল ছবি উঠার যে প্রসেস সেটা একটু বেশি সময় নিচ্ছিলো। তবে এখানে আরো একটা কথা সেটা হল আপনি যখন ছবি তুলবেন তখন যদি আপনার হাত নড়ে যায় তাহলে আপনার সার্ফনেস একটু কম পাবেন।

পোর্ট্রেট খুব ভালো আসে। তবে এটা ফেস স্মুথ করে ফেলে খুব তাড়াতাড়ি যেটা আমার কাছে একদমই ভালো লাগেনি। তবে কিছু মানুষের ভালো লাগবে যারা এই স্মুথ ভালো বাসেন। ফন্ট ক্যামেরাও একই ফেস স্মুথ করে ফেলে মোটামুটি কালার কম্বিনেশন খুবই ভালো। দিনে খুব ভালো ছবি আসে রাতে একটু নরমাল হলেও মুটামুটি ভালো ছবি আসে। এছাড়াও ফন্ট ক্যামেরার পোর্ট্রেট দেখার মোট ছিল বলতে হবে। এছাড়াও ৪k ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন। ভিডিও রেকর্ডিং ভালোই ছিল।

১০৮ mp ক্যামেরা দিয়ে যখন ছবি তুলবেন তখন ক্যামেরাটা অনেক গরম হয়ে যায় এবং হ্যাং কাজ করে। এটা নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলে তবে যে যাই বলুক না কেন আমি যা দেখলাম এটার ১০০w mp সেন্সরটা এত বড় এবং পাওয়ারকম জিউন যে এটা গরম হবেই। আপনি এরকম যত গুলো ফোন পাবেন সব গুলাতেই গরম হবে। তবে এই ফোনটা অনেক ছবি তুলার পরেও একটুও হ্যাং কাজ করে নাই। হয়তো এটা এই ফোনের ভার্শনের কারণে হয় নাই। তবে এখনো ক্লিয়ার করে বলতে পারছি না। একটা কথা বলতে পারি অনেক চেষ্টা করেও এটা হ্যাং করতে পারি নাই কিন্তু গরম হইছে।

Chipset: Qualcomm Snapdragon
732G (8 nm)
RAM : 6 / 8 GB
Processor : Octa core
up to 2.3 GHz
GPU : Adreno 618

এই ফোনের Chipset হচ্ছে Qualcomm Snapdragon খুবই অসাধারণ। এচাড়াও এই ফোন ৬ জিবি এবং ৮ জিবি RAM পাওয়া যাবে। এই ফোন এ যে Processor ব্যবহার করা হইছে সেটা অস্থির একটা Processor .যার রয়েছে ২.৩ GHz Octa core Processor. আপনি এই প্রকসেসর দিয়ে যে কোন গেম খেলতে পারবেন। এমনকি pubg গেম High গ্রাফিক্স দিয়ে খেলতে পারবেন। এটার ভার্সন হচ্ছে android 11 .এচাড়াও ফোনে রয়েছে

Fingerprint : ✅ Side-mounted
Face Unlock : ✅
Sensors: Fingerprint, Accelerometer, Gyroscope, Proximity, E-Compass
Network : 2G, 3G, 4G
SIM : Dual Nano SIM
WLAN : ✅ dual-band, Wi-Fi direct, Wi-Fi hotspot
Bluetooth : ✅ v5.1, A2DP, LE
GPS : ✅ A-GPS, GLONASS, BDS, GALILEO
Radio : ✅ FM
USB : v2.0
Battery
Type and Capacity : Lithium-polymer 5020 mAh (non-removable)
Fast Charging : 33W Fast Charging (59% in 30 minutes)

Fingerprint টা ছিল অসাধারণ। টাচ দেয়ার সাথে সাথে খুলে যায়। Face Unlock মোটামুটি ভালো ছিল। এই ফোনে যত গুলো সেন্সর ছিল সব গুলোই ভালো মানের। তাছাড়া 4G নেটওয়ার্ক ২ টা সিম ব্যবহার করা যায়। তাছাড়াও WLAN, Bluetooth,GPS,Radio এবং USB সব গুলাই উন্নত মানের। এই ফোনে সবচেয়ে ভালো যেটা রয়েছে সেটা হল এই ফোনের Battery. এটা Lithium-polymer 5020 mAh (non-removable) যা আপনি ১ দিন অনায়াসেই ব্যবহার করতে পারবেন। এবং এটাতে রয়েছে 33W Fast Charging যা ৫৯% চার্জ হতে সময় নেয় মাত্র ৩০ মিনিট। এই ফোনের অফিসিয়াল দাম হচ্ছে

Official ✭ ৳26,999 6/64 GB
৳27,999 6/128 GB
৳29,999 8/128 GB

আরও পড়ুনঃ ১৫ হাজার টাকায় সেরা গেমিং ফোন! – Infinix Note 8i Full Review

এই বাজেটে ফোনের মধ্যে এই ফোন সেরা আমি মনে করি। বর্তমান বাজারে একে অপরকে ছাড়িয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে সকল কোম্পানি তাদের সব চেয়ে ভালো ফোন গুলা বাজারে আনছে। তবে এই ফোন প্রায় সব দিকেই ভালো। যদিও সব দিক থেকে পারফেক্ট হয় না তবুও আমি বলবো এই বাজেটে সেরা ফোন এটি।

আরও পড়ুনঃ Realme C15 ১৩ হাজার টাকায় দারুন একটা ফোন??

তো বন্ধুরা আজ এইটুকুই দেখা হবে এরকম আরোও সময়ের সেরা ফোন নিয়ে। ততক্ষন আমাদের সাথেই থাকুন। আর হ্যা আমাদের এই রিভিউ গুলো যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই লাইক,কমেন্ট এবং শেয়ার করবেন। এতক্ষন সাথে থাকার জন্যই ধন্যবাদ। ভালো থাকেন সুস্থ থাকেন। আল্লাহ হাফেজ

Writing By
Shapon Ahmed

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.