November 29, 2021
Infinix HOT 11S

Infinix HOT 11S Full in-depth Review In Bangla | ১৫ হাজার টাকায় সেরা ফোন?

আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন সবাই। আশা করি ভালো আছেন। আপনাদের দোয়ায় আমিও ভালো আছি। তো বন্ধুরা আজ এমন একটি ফোনের রিভিউ নিয়ে হাজির হয়েছি যা বর্তমান বাজারে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ইতোমধ্যে।
বন্ধুরা  আমরা  Infinix Hot 11s এর রিভিউ নিয়ে কথা বলতে যাচ্ছি। আপনারা হয়তো জানেন Infinix Hot 11s নিয়ে দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা শুরু হয়েছে। এর কারণ অল্প দামে ভালো মানের ফোনের দিক থেকে এই ফোন ব্যাপক চাহিদা এখন বাজারে।

Infinix HOT 11S সম্পর্কে ধারণা :

বর্তমান বিশ্বে টেক জায়ান্টের মধ্যে Infinix কোম্পানি প্রথমে তেমন একটা অবস্থা তৈরী করতে না পারলেও বর্তমান সময়ে সবার সাথে তাল মিলিয়ে বাজারে আনছে একের পর এক চমক । বর্তমান বাজারে এখন Infinix মানেই যেন ভিন্ন কিছু। কারণ অল্প দামে দর্শকদের চাহিদা শুধু Infinix কোম্পানিই পূরণ করতে পারে। তাছাড়া Infinix তার প্রতি টি প্রোডাক্টের মধ্যে সেরাদের ছাপ রেখেছে। সেই জন্যেই আজ তারা বিশ্ব বাজারে নিজেদের জায়গা তৈরী করছে।
তবে বর্তমান বাজারে Infinix যে প্রোডাক্টটা বেশি সাড়া ফেলেছে সেটা হল Infinix Hot 11s শুরু থেকে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাওয়া ফোনটি আজ সাড়া বিশ্বে তাক লাগিয়ে দিয়েছে একের পর এক চমক দেখিয়ে। আজ পর্যন্ত Infinix Hot সিরিজে যত গুলো ফোন বাজারে এসেছে একেক টা ফোন একেক জনকে ছাড়িয়ে গেছে। দর্শকও এখন তাদের চাহিদা অনুযায়ী অল্প বাজেটে ভালো মানের ফোন হাতের কাছে পেয়েছে।
Infinix কোম্পানি অল্প সময়ের মধ্যে তাদের প্রোডাক্টের মাধমে নিজেরদের একটা জায়গা তৈরী করে ফেলছে। যার ফলে Infinix এর জনপ্রিয়তা দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। ফলে অল্প কিছু দিনের মধ্যে বিশ্বের বাজারে উন্নত ব্রান্ডের ফোন কোম্পানির সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা শুরু করে দিবে আমার মনে হয়।
তো বন্ধুরা চলুন এবার দেখে আসি Infinix Hot 11s এ কি কি থাকছে। এবার আলোচনা করবো ফোনটির ডিসপ্লে নিয়ে :-

Infinix HOT 11S Display:

Infinix বরাবরই বেশ বড় ধরণের ফোন বাজারে আনে এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। তাই Infinix Hot 11s বড় ধরনের ডিসপ্লে নিয়ে আসছে আমাদের মাঝে। আগের ফোনের তুলনায় এই ফোনের ডিসপ্লে আমার কাছে বেশ লেগেছে এবং একটু বড়ও লেগেছে। তাছাড়া Infinix Hot 11s এ থাকছে IPS LCD ডিসপ্লে। যা থাকছে 6.78 ইঞ্চি।
এই ফোনের রিফ্রেশ রেট 90Hz ফোনটির Resolution হিসেবে থাকছে 1080 x 2480 pixels (~399 ppi density) ফোনটিতে Protection হিসেবে থাকছে NEG Dinorex T2X-1
বুঝতেই পারছেন বাজেট অনুযায়ী Protection এর দিক থেকে এর চেয়ে আর কি আশা করা যেতে পারে।

Infinix HOT 11S Body:

ফোনটির ফন্ট সাইটে Glass এবং ব্যাক সাইডে plastic. এবং plastic এর ফ্রেম ব্যবহার করা হয়েছে। সিম কার্ডের দিক থেকে এই ফোন ডুয়াল সিম কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন। ফোনটির ওজন 205 গ্রাম। এটা আপনার কাছে একটু হালকা লাগতেই পারে তবে হাতে নিলে আপনার অন্য রকম একটা ফিল আসবে বলে আমার মনে হয়। কারণ আমরা যা দর্শকরা হালকা বা পাতলা জাতীয় ফোনই বেশি পছন্দ করি তাদের জন্য এটা বেষ্ট অপশন।

Infinix HOT 11S Camera:

ক্যামেরা কোয়ালিটি আমার ভালোই লেগেছে যদিও একটু শার্পনেস এর ঘাটতি ছিল তবে এই বাজেটে আমি বলব এটা আপনারদের জন্য ভালো একটা ক্যামেরা হতে যাচ্ছে। তাছাড়া ছবি তোলার সময় ন্যাচারাল কালার দিচ্ছিল তবে মাঝে মাঝে আবার ছেড়ে দিচ্ছিল। তাছাড়া বাকি সব ঠিক আছে। ফোনটিতে ব্যাক ক্যামেরা হিসেবে থাকছে ত্রিপল রিয়ার ক্যামেরা যা 50 MP, f/1.6, (wide), PDAF এবং 2 MP, (depth)
Unspecified camera ক্যামেরা। সাথে থাকছে QVGA (Low light sensor). এছাড়াও QQuad-LED flash, HDR, panorama রয়েছে। আপনি[email protected] ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন।
সেলফি ক্যামেরাতে ব্যাপক সুবিধা আছে। কারণ সেখানে থাকছে ডুয়াল Dual-LED flash. আর ক্যামেরাতে থাকছে 8 MP, f/2.0, (wide)সেন্সর ক্যামেরা। এই ক্যামেরা দিয়ে আপনি [email protected] ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন। তবে এখানে একটা মজার বিষয় হল আপনি এক সাথে দুই টা ফ্লাশ লাইট জ্বালিয়ে রাখতে পারবেন। তো ক্যামেরা দিক থেকে মেইন ক্যামেরা মোটামোটি ভালো। তাছাড়া ফন্ট ক্যামেরা আমার কাছে ভালোই লেগেছে। এটা আরও ভালো করতে পারতো। যাই হোক বুইঝতেই পারছেন বাজেট অনুযায়ী এর থেকে বেশি কি আশা করা যায়।

আরও পড়ুনঃ Realme C21Y Full Bangla Review | বেস্ট গেমিং ফোন?
Infinix HOT 11S

Infinix HOT 11S Sound System:

Sound System এ তেমন কোনো পরিবর্তন আমি দেখি নাই। প্রতিবারের মতোই 3.5mm Aduio jack থাকছে। সাথে loudspeaker তো থাকছেই। আর সব ফোনের মত Wifi ,USB ,Bluetooth ইত্যাদি থাকছে। এদিকে কোন সমস্যা আছে বলে আমার মনে হয় না।

Infinix HOT 11S Features:

Features এর মধ্যে আপনি পাচ্ছেন পেছনে ফিঙ্গার প্রিন্ট সাথে ফেস লক তো থাকছেই। ফিঙ্গার প্রিন্ট লক সাইডে দিলে একটু বেশি ভালো লাগতো। তবে ফিঙ্গার প্রিন্ট লক খুবই ফাস্ট লেগেছে আমার কাছে। কারণ এর সেন্সর খুবই উন্নত মানের তাই হয়ত দ্রুত লক খুলে যায়।

Infinix HOT 11S Memory RAM /ROM :

আপনারা শুনলে অবাক হবেন যে Infinix এই ফোনটি ২ টি ভেরিয়েন্টে বাজারে লঞ্চ করছে। তাই এবার তেমন কোন চমক থাকছে না। এই ফোনটি পাওয়া যাবে 64GB ROM 4GB RAM এবং128GB ROM 6GB RAM এই দুই ভেরিয়েন্টে। তাছাড়া এক্সট্রা মেমোরি কার্ড জন্য অপশন থাকছে microSDXC (dedicated slot)

Infinix HOT 11S Network:

GSM / HSPA / LTE পর্যন্ত সুবিধা পাবেন। 5G সুবিধা পাওয়া যাবে না এই ফোনে।

Infinix HOT 11S Battery:

Infinix তার প্রতিটা ফোনেই ব্যাটারি অনেক বড় use করে। এবারও তাই করেছে। Infinix Hot 11s এ ব্যাটারি হিসেবে ব্যবহার করেছে Li-Po 5000 mAh, non-removable ব্যাটারি। তাছাড়া এই ফোন এ ফাস্ট চার্জিং সুবিধা থাকছে। ফলে সাথে আপনি ১৮W ফাস্ট চার্জার পাচ্ছেন। যার ফলে দর্শকের মন আরো ভালো লাগতেই পারে।

Infinix HOT 11S Mics:

এই ফোনটি মূলত ৩ টি রঙে বাজারে আসছে। রং গুলো হলো,
১. Polar Black
২. Green Wave
৩. Purple
বাজারে সব রঙের ফোন পাবেন। আমারও রং গুলা ভালো লেগেছে। তবে আমি আশা করি আপনারও ভালো লাগবে।
এই ফোনের মডেল হল X6812.বেশ ভালো লেগেছে এ রকম ফোন এ এমন মডেল দেয়ার জন্য।

Infinix HOT 11S Platform:

Infinix Hot 11s ফোনটি রান করার জন্য দারুন processor uesd করেছে । ফোনটিতে Run করার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে Octa-core (2×2.0 GHz Cortex-A75 & 6×1.8 GHz Cortex-A55) processor এবং Mali-G52 MC2 GPU এবং ফোনটিতে চিপসেট হল MediaTek Helio G88 (12nm).
এই ফোনটিতে যে প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে এটা মূলত গেমিং প্রসেসর। এই প্রসেসর দিয়ে আপনি অনায়াসে Pubg ,FreeFire খেলতে পারবেন। যদিও Pubg বাংলাদেশে বন্ধ তবু আপনি যে কোন গেম খেলতে পারবেন অনায়াসে।

Infinix HOT 11S Launch:

Infinix Hot 11s বাংলাদেশের বাজারে ইতোমধ্যে চলে আসছে। Infinix Hot 11s ফোনটি ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০২১ Announced হইছে। আর অফিসিয়ালি আসছে ২১ই সেপ্টেম্বর ২০২১ সালে।

Infinix HOT 11S Price:

ফোনের দাম নিয়ে ভক্তদের মধ্যে অনেক আগ্রহ ছিল। কিন্তু সেই কাঙ্ক্ষিত দাম আমাদের সামনে আসছে। যেহেতু ফোনটি ২টি ভেরিয়েন্টে বাজারে আসছে তাই দাম একটু ভিন্ন হবে। যেমন :
৪/৬৪ এর দাম ১৪,৯৯০ টাকা
৬/১২৮ এর দাম ১৫,৯৯০ টাকা

Infinix HOT 11S ফোন সম্পর্কে আমার মতামত:

ফোনে সবকিছু দেখে আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছে। যদিও আমি কিছু দিক থেকে হতাশ ছিলাম, তবুও কিছু আপগ্রেড দেখে আমার কাছে ভালো লাগছে। আপনাদের কাছেও ভালো লাগবে বলে আমি আশা করছি। তাছাড়া ফোনটি আগের চেয়ে অনেক বেশি একটা পরিবর্তন লক্ষ্য করি নাই ২/১ টা ছাড়া।
তবে আমি এই টুকু বলতে পারি আপনি যদি এই ফোনটি কেনেন তাহলে ফোনটি আপনাকে হতাশ করবে না। কারণ ফোনটি সব দিক দিয়ে পারফেক্ট কম্বিনেশন হবে আপনার জন্যে। তাছাড়া ফোনের ফিচার সব দারুন। বিশেষ করে এই ফোনের প্রসেসর ছিল দারুন। কারণ এই বাজেটে আপনি এর থেকে ভালো গেমিং প্রসেসর হয়ত পাবেন না বলে আমি মনে করি। আর একটা কথা হল Infinix ব্যবহারকারী বেশ ভালোই জানেন পূর্বে এই ফোন তাদের কেমন চাহিদা মিটিয়েছে। এবারও তাদের হতাশ করবেনা বলে মনে হচ্ছে আমার। আর যারা নতুন তাদের জন্য বলছি আপনি যদি এই ফোন কিনতে চান তাহলে কিনতে পারেন। কারণ এই ফোন আপনার জন্য দারুন এক কম্বিনেশন হতে যাচ্ছে। তাছাড়া এগুলা বলার অপেক্ষা রাখে না কারণ এর থেকে আপনি নিজেই ভালো জানেন Infinix কেমন। নতুন কোম্পানি হিসেবে এই ফোন দর্শকদের ভালো চাহিদা মেটাচ্ছে। তাই বলছি আর দেরি না করে এখনই কিনতে পারেন আপনার সেই কাঙ্ক্ষিত Infinix Hot 11s

আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন ( Flashfilex.com ) এর সাথে । যুক্ত হতে – এখানে ক্লিক করুন

তো বন্ধুরা এই ছিল আজকে আমাদের আয়োজন। আশা করি আপনাদের ভালো লেগেছে। এ রকম আরও ভালো ভালো ফোনের রিভিউ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন। এবং আমাদের এই পোস্টটি যদি আপনার কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের এই পোস্টে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করবেন। সেই সাথে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেজ

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published.