September 22, 2021
airports

The 10 largest airports in the world | বিশ্বের 10 টি বৃহত্তম বিমানবন্দর

The 10 largest airports in the world | বিশ্বের 10 টি বৃহত্তম বিমানবন্দর

বিশ্বায়নের এই যুগে নানা কাজে মানুষকে ঘুরে বেড়াতে হয় পৃথিবীর নানা প্রান্তে। এ ছাড়া অনেকেই ঘুরে ঘুরে দেখতে পছন্দ করেন বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা মনুষ্য চিস্ট্রি নিদর্শন এবং প্রাকৃতিক সুন্দর্য। আর দেশ বিদেশে ঘুরে বেড়ানোর সবচে সহজ উপায় বিমান ভ্রমণ। তাই ভ্রমণের জন্য বিমান বন্দর খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চলুন আজ জেনে নেয়া যাক বিশ্বের সবচে বড় ১০ টি বিমান বন্দরের কথা।

সল্ট লেক সিটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

সল্ট লেক সিটি আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর, মার্কিন যুক্তরাষ্টর এই বিমান বন্দরটি যাত্রী বহনের দিক থেকে শীর্ষ বিমান বন্দর গুলোর মধ্যে না থাকলেও আয়তনের দিক দিয়ে তা বিশ্বের ১০নম্বর স্থানে রয়েছে। ২০১৬ সালে বন্দরটি দিয়ে প্রায় ২ কোটি ৩০ লক্ষ যাত্রী চলাচল করেছে। বিমান বন্দরটির মোট আয়তন ৩ হাজার ১১৬ হেক্টর। মার্কিন যুক্তরাষ্টর চল্টলেক সিটি থেকে সাড়ে ৬ কিলোমিটার দূরে বিমান বন্দরটিতে ৩ টি পিচ ঢালা রানওয়ে একটি কংক্রিট এর রানওয়ে ৩ টি পিচ ঢালা হিলিপেট রয়েছে।

airports

শাল দে গোল বিমান বন্দর

শাল দে গোল বিমান বন্দর, সাবেক ফরাসি প্রেসিডেন্ট শাল দে গোলের নাম প্যারিস এর এই বিমান বন্দরটির নাম করণ করা হয়েছে। এটা ফ্রান্স এর সবচে বড় এবং প্রধান বিমান বন্দর। ইউরোপের সবচে বড় বোমান সংস্থা গুলোর অন্যতম ইয়ার ফ্রানসের মূল হাব হিসেবেও বন্দরটি ব্যাবহারিত হয়।

আয়তনে বিশ্বের ৯ নম্বরে থাকা বিমান বন্দরটি ৩ হাজার ২০০ হেক্টর জায়গা জুড়ে রয়েছে। বন্দরটিতে রয়েছে ৩ টি টার্মিনাল ও ৪ টি পিচ ঢালা রানওয়ে। ২০১৬ সালে প্যারিস শাল দে গোল বিমান বন্দরটি ইউরোপের দ্বিতীয় ব্যাস্ততম বিমান বন্দর ছিল। ২০১৭ সালে বন্দরটি দিয়ে ৬ কোটি ৬০ লক্ষ যাত্রী চলাচল করেছেন। আন্তর্জাতিক চলাচলের দিক দিয়ে ২০১৬ সালে বন্দরটি বিশ্বের ৫ নম্বরে ছিল।

airports

সুবর্ণভূমি বিমানবন্দর

সুবর্ণভূমি বিমান বন্দর, সাধারণ ভাবে ব্যাংকক আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর নামে পরিচিত সুবর্ণভূমি বিমান বন্দর আয়তনে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার বৃহত্তম। বিমান বন্দরটি এই তালিকায় থাকা দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার ২ টি বিমান বন্দর এর একটি। ব্যাংকক ইয়ার ওয়েজ ও জেট এশিয়া ইয়ার ওয়েজ সহ বেশ কয়েকটি এশিয়ান বিমান সংস্থা মূল পোতাশ্রয় এটি।

বিশ্বের ৮ নম্বর বৃহত্তম সুবর্ণভূমি বিমান বন্দরের মোট আয়তন ৩ হাজার ২৪০ হেক্টর। বিমান বন্দরটিতে বিশ্বের সবচে উঁচু কন্ট্রোল টাওয়ার গুলোর একটি সহ একক ভবনে টার্মিনালের জন্য এটি বিখ্যাত । এশিয়ার নবম ব্যাস্ততম বিমান বন্দরটি দিয়ে ২০১৬ সালে প্রায় ৫ কোটি ৬০ লক্ষ যাত্রী চলাচল করেছেন।

airports

কায়রো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

কায়রো আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরটি মিসরের ব্যাস্ততম ও আফ্রিকার দ্বিতীয় ব্যাস্ততম বিমান বন্দর। আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর রূপান্তরের আগে দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সময় বিমান বন্দরটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সামরিক খ্যাটি হিসেবে ব্যাবহারিত হয়েছে। প্রাচীন মিশরের হিলিপলিস শহরে অবস্থিত বন্দরটি মিশরে বৃহত্তম বিমান সংস্থা ইজিপ্ট এয়ার ও নীল এয়ার মূল পোতাশ্রয়ী হিসেবে ব্যাবহারিত হয়।

বিশ্বের সপ্তম স্থানে থাকা কায়রো বিমানবন্দরের আয়তন ৩ হাজার ৭০০ হেক্টর। আয়তনে বড় হলেও যাত্রী পরিবহনের দিক দিয়ে বন্দরটি শীর্ষ তালিকায় নেই। পিরামিডের দেশের বিমানবন্দ টিতে ৩ টি টার্মিনাল ৩ টি পিচ্ ঢালা রানওয়ে রয়েছে।

সাংহাই পুডং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

সাংহাই পুডং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, সাংহাই শহর থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরের বিমানবন্দরটি শহরটির দুইটি বিমানবন্দরের একটি। বন্দরটি বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক এর পাশাপাশি চাইনা ইনস্ট্রান এয়ারলাইন ও সাংহাই এয়ারলাইন পোতাশ্রয়ী হিসেবে ব্যাবহারিত হয়। সাংহাই পুডং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি এশিয়ার পঞ্চম ব্যাস্ততম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর।

বন্দরটি দিয়ে ২০১৬ সালে ৬ কোটি ৬০ লক্ষ যাত্রী চলাচল করেছেন। তবে কার্গো বরিবনের বন্দরটি বিশ্বের তৃতীয় স্থানে রয়েছে। ২০১৬ সালে বন্দরটিতে ৩৪ লক্ষ ৪০ হাজার ২৮০ টোনের মতো পণ্য আমদানি,রপ্তানি করা হয়েছে। ৪ হাজার হেক্টরের আয়তনের বিমানবন্দরটিত ২টি টার্মিনাল ও ৫ টি কংক্রিটের রানওয়ে রয়েছে।

airports

কানসাস সিটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

কানসাস সিটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রর ব্যাস্ততম বিমানবন্দর গুলোর মধ্যে না থাকলেও আয়তনে সবচেয় বড় গুলোর একটি। মিশরী অঙ্গরাজ্যের কান্সার শহরে অবস্থিত বিমানবন্দরটিতে অন্যান সুবিধার মধ্যে অন্যতম হলো এখানে বিমান মেরামতের ব্যবস্থা রয়েছে।

১৯৫০ সালে স্থাপিত বিমানবন্দরটির আয়তন ৪ হাজার ৩২০ হেক্টর। এতে ৩ টি টার্মিনাল ২ টি পিচ্ ঢালা রানওয়ে ও ১ টি কংক্রিট রানওয়ে রয়েছে। তুলনা মূলক কম গুরুত্বপূর্ণ  বিমান বন্দরটি দিয়ে ২০১৬ সালে প্রায় ১ কোটি ৬০ লক্ষ যাত্রী চলাচল করেছে।

ওয়াশিংটন ডুলেস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

ওয়াশিংটন ডুলেস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রর ৫২ তম পররাষ্ট্রমুন্ত্রী জন ফস্টার ডুলেসের নামে স্থাপিত ওয়াশিংটন ডুলেস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি বাল্টিমোর ওয়াশিংটন এলাকার প্রধান ৩ বিমানবন্দরের অন্যতম। আয়তনে সেরা তিনে থাকলেও যাত্রী পরিবহনের দিক দিয়ে বিমানবন্দরটি পিছিয়ে রয়েছে।

২০১৬ সালে বন্দরটি দিয়ে ২ কোটি ২০ লক্ষ এর মতো যাত্রী চলাচল করেছেন। বিশ্বের চতুর্থ স্থানে থাকা বিমানবন্দরটির আয়তন ৫ হাজার ২০০ হেক্টর। বন্দরটিতে প্রধান টার্মিনালের পাশাপাশি ২ টি সাব টার্মিনাল এবং ৪ টি কংক্রিট এর রানওয়ে রয়েছে।

airports

ডালাস বিমানবন্দর

ডালাস বিমানবন্দর, আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি মার্কিন যুক্তরাষ্টের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দর হলেও বিশ্বে এর অবস্থান তৃতীয়। যাত্রী পরিবহনের দিক থেকে এটি বিশ্বের ১১ তম ব্যাস্ততম বিমানবন্দর। ২০১৬ সালে ৬ কোটি ৫৬ লক্ষ যাত্রী পরিবহন করে যা বন্দরটির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি।

৬ হাজার ৯৬৩ হেক্টর আয়তনের বন্দরটি ম্যানহাটন দ্বীপের চেয়েও বড়। বন্দরটিতে মোট ৬ টি টার্মিনাল রয়েছে। এখানে কংক্রিট নির্মিত ৭ টি রানওয়ে রয়েছে। বিমানবন্দরটি এতো বড় যে রয়েছে নিজ্বস্য পোস্টালকোর্ড। এছাড়া নিজ্বস্য পুলিশ, অগ্নি নির্বাপন কর্মী ও জরুরী চিকিৎসা সেবার ব্যাবস্থাও রয়েছে। মানের দিক দিয়ে এটাকে সবচেয়ে সেরা বিমানবন্দর বলা হয়।

airports

আরও পড়ুনঃ বিশ্বের সেরা ৫ টি দ্রুতগামী ট্রেন | Top 5 High Speed Train in the World

ডেনভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

ডেনভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রর কলোরাডো অঙ্গ রাজ্যের ডেনভার শহরে অবস্থিত বিমানবন্দরটি দেশটির বৃহত্তম বিমানবন্দর। আর বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দরটির আয়তন তৃতীয় স্থানে থাকা ডালাস বিমানবন্দরের প্রায় দ্বিগুন। বন্দরটির মোট আয়তন ১৩ হাজার ৫৭০ হেক্টর।

ডেনভার বিমানবন্দরটি ফ্রন্ট এয়ার বিমান সংস্থা ও গ্রেট লেক্স বিমান সংস্থা প্রধান পোতাশ্রয়। ৬ টি কংক্রিটের রানওয়ের বন্দরটি বিশ্বের অন্যতম ব্যাস্ততম বিমানবন্দর। ২০১৬ সেলে প্রায় ৫ কোটি ৮০ লক্ষ যাত্রী চলাচল করেছেন বন্দরটি দিয়ে যা বিশ্বের ১৮ তম অবস্থানে ছিল।

airports

কিং ফাহাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

কিং ফাহাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিমানবন্দর কিং ফাহাদ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট। সৌদি আরবের দাম্মাম শহরে অবস্থিত বিমানবন্দরটির আয়তন ৭৭ হাজার ৬০০ হেক্টর। বিমানবন্দরের তালিকায় তা অন্যদের তুলনায় দানব আকৃতির। বন্দরটির আয়তন আরো বেশ বাহারানে চেও বড়।

তবে এখানে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল বন্দরটির মাত্র ৩ হাজার ৬৭৫ হেক্টর এলাকা ব্যাবহারিত হচ্ছে। যা বন্দরটির মোট আয়তনের ৫ শতাংশ এর কম। বাদশা ফাহাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি তালিকায় সবচেয়ে নতুনও। ১৯৯৯ সালে চালু হওয়া বন্দরটি যাত্রী পরিবহনের দিকথেকে অনেক পিছিয়ে রয়েছে। বছরে মাত্র ১ কোটি যাত্রী ব্যবহার করেন। বলাযেতে পারে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিমানবন্দরটি সবচেয়ে কম উৎপাদনমুখী।

 

আরও পড়ুনঃ Perfect BMI: জেনে নিন আপনার আদর্শ ওজন কত হওয়া উচিত

তো এই ছিল আজকের পোস্ট যেখানে আমি আলোচনা করেছি The 10 largest airports in the world | বিশ্বের 10 টি বৃহত্তম বিমানবন্দর নিয়ে আশা করি আপনাদের বুঝাতে সক্ষম হয়েছি । আশা করি পোস্টটি ভালো লেগেছে কেমন লেগেছে তা অবশ্যই কমেন্ট করে জানতে ভুলবেন না। এই রকম আরও পোস্ট পেতে চাইলে আমাদের সাথেই থাকুন। আমাদের পোস্ট গুলো যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে, অনুগ্রহ করে আমাদের পোস্ট গুলি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করবেন।

যদি কোনো ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই ক্ষমা সন্দুর দৃষ্টিতে দেখবেন। ধন্যবাদ আপনাকে আর্টিকেলটি পরার জন্য ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন বিদায় নিচ্ছি আজকের মত আল্লাহ্‌ হাফেজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.