September 22, 2021
সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ-10 Smallest Countries in the World

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ

পৃথীবিতে ১৯৬টি দেশ রয়েছে, কিন্তু তাদের মধ্যে মাত্র ২৪টি দেশের আয়তন ১  হাজার বর্গ কিলোমিটারের কম। এই ২৪ টি দেশের আবার কোন কোন টির আয়তন একটি শহর বা একটি শহর তলির চেয়ে খুব একটা বড়  নয়। এই পর্বে থাকছে বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০ টি দেশ নিয়ে একটি প্রতিবেদন।

মাল্টা-Maltaসবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- মাল্টা, ভুমন্ত সাগরের ৭ টি দ্বীপ নিয়ে পৃথিবীর দশম ক্ষুদ্রতম দেশটির আয়তন হল ৩১৬ বর্গ কিলোমিটার। ৭ টি দ্বীপের মধ্যে মাত্র ৩ টি দ্বীপ আকারে বড়। বিশ্বের অন্যতম ঘন বসতী পূর্ণ এই দেশের জনসংখা ৪৪ লক্ষ ৬ হাজার ৫৪৭ জন। দেশটির ঐতিহাসিক এবং সাংস্কৃতিক ঐতিজ্য কিন্তু উল্লেখ যোগ্য। দেশটি প্রাগ ঐতিহাসিক গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোর মধ্যে অন্যতম। হিপোজিয়াম নামে ৫ হাজার বছরের পুরনো একটি স্থাপনা এর মধ্যে উল্লেখ যোগ্য। মাল্টায় খিস্টপূর্ব ৩ হাজার ৬০০ থেকে খিস্টপূর্ব ৭০০ সালের মধ্যে নির্মিত ৭ টি প্রাগ ঐতিহাসিক মন্দির আছে। ভিবিন্ন সময় ভিবিন্ন শাসক গুষ্ঠি যেমন ফিনিসিয়ান, রোমান ছিচিলিয়ান ফ্রেঞ্চ এবং ব্রিটিশদের দ্বারা এই দুৎপুঞ্জ শাসিত হয়েছে। ১৯৬৪ স্বাধীনতা লাভ করে দেশটি এবং মাল্টার প্রধান ভাষা হচ্ছে ইংরেজি ও মাল্টিজ। ক্ষুদ্র এই দেশটির অর্থনৈতিক আয়ের প্রধান উৎস হচ্ছে পর্যটন। এখানকার নান্দনিক সুমদ্র সৈকত প্রতি বছর প্রচুর পর্যটককে অকীর্স্ট করে।

 

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশমালদ্বীপ-Maldives

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- মালদ্বীপ, ভারত মহাসাগরে অবস্থিত প্রাকৃতিক সুন্দর্যে ভরপুর এই দেশটির আয়তন মাত্র ২৯৮ বর্গ কিলোমিটার। ১ হাজার ৯০ টি ছোট বড় দ্বীপ নিয়ে
গঠিত দেশটির মাত্র ২০০ টির মত দ্বীপে জন বসতি রয়েছে। পৃথিবীর নবম ক্ষুদ্রতম এই দেশটির জনসংখ্যা মাত্র ৩ লক্ষ ৯৩ হাজার ৫০০ জনের মতো। মালদ্বীপে খিস্টপূর্ব পঞ্চম শতক থেকে মানুষ বাস করে আসছে। মালদ্বীপ ১৬ শতকে পোর্তকীস দের অধীনে ছিল। এরপর ১৭ শতকে ডাজদের অধীনে যায় এবং ১৮ শতক থেকে ব্রিটিশদের অধীনে থাকা অবস্থায় ১৯৬৫ সালে স্বাধীনতা লাভ করে। মাল্টিপের অধিকংশ দ্বীপ সমুদ্র পৃষ্ঠের মাত্র ১.৫ মিটার উঁচু যে কারণে মালদ্বীপকে পৃথিবীর নিচু দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম ধরা হয়। দেশটির অর্থনৈতিক আয়ের প্রধান উৎস হচ্ছে পর্যটন। দেশটির উল্লেখ করার মতো কিছু জিনিস রয়েছে যেমন সাদা বালির সৈকত, প্রবল প্রাচীর স্বচ্ছ নীল পানি সমুদ্র আর বিচিত্র ভরপুর প্রাণী কুল। দুঃখের বিষয় হচ্ছে যদি দুর্ভাগ্য ক্রমে সমদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বেড়ে যায় তাহলে একদিন  মালদ্বীপের অনেক দ্বীপ পানির নিচে তলিয়ে যাবে।

 

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশসেন্ট কিটস এন্ড নেভিস-Saint Kitts and Nevis

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- সেন্ট কিটস এন্ড নেভিস, দুইটি ভিন্ন দ্বীপের সমন্বয় গঠিত এই ছোট্ট ক্যারিব্বান দেশটির আয়তন হচ্ছে মাত্র ২৬১ বর্গ লকিলোমিটার। এর মধ্যে সেন্ট কিটস এর আয়তন হচ্ছে ১৬৮ বর্গ কিলোমিটার এবং নেভিসের আয়তন হচ্ছে ৯৩ বর্গ কিলোমিটার। দেশটির জনসংখ্যা মাত্র ৫১ হাজার ৫৩৮ জন। ক্যারিব্বান সাগরের অবস্থিত দেশটিতে আদিবাসীরা প্রায় সবাই ক্যারির জনগোষ্ঠীর অংশ। এই দ্বীপ দুইটি কলম্বাস ১৪৯৮ সালে আবিষ্কার করেন। ব্রিটিশরা ১৯২৩ সালে সেন্ট কিটস দখল করে এবং ১৯২৮ সালে নেভিস কে দখল করে। কিন্তু ফ্রান্স ১৯২৭ সালে দ্বীপ দুইটিতে তাদের উবনিবেশ গড়ে তোলে। ব্রিটিশ এবং ফরাসিরা এরপর প্রায় ১০০ বছর যুদ্ধ করে এই দ্বীপ দুইটি নিয়ে। ১৭১৩ সালে ব্রিটিশরা এখানে একতছত্র আদীপ্ত এস্থাপনে সক্ষম হয়। সেন্ট কিটস এবং নেভিস ১৬৭ সালে একক রাষ্টে পরিণত হয় এবং ১৯৮৩ সালে স্বাধীনতা লাভ করে। ছোট্ট এই দেশটির সোনাম রয়েছে তাদের আদিম সমুদ্র সৈকতের জন্য। এখানে আরো আছে সবুজ উপত্যকার রেইনফরেস্ট এবং চমত্কার আবহওয়া। দেশটির আয়ের প্রধান উৎস হচ্ছে আখ চাষ আর পর্যটন।

 

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশমার্শাল দ্বীপপূঞ্জ- Marshall Islands

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- মার্শাল দ্বীপপূঞ্জ, প্রায় এক হাজারটি ক্ষদ্র ক্ষদ্র দ্বীপ ও ২৯ টি প্রবাল প্রাচীর নিয়ে গঠিত মার্শাল দ্বীপপূঞ্জ এর আয়তন হচ্ছে মাত্র ১৮১ বর্গ কিলোমিটার। হাজার খানিক দ্বীপের মধ্যে বাসযোগ্য দ্বীপ হচ্ছে মাত্র ২৪ টি এবং সেখানে প্রায় ৬৮ হাজারের মতো মানুষ বাস করে। ১৬ শতাব্দী থেকে শুরু করে ৩০০ শতাব্দী পর্যন্ত দেশটি যথাক্রমে এস্প্যানিস, জার্মান, জাপানিজ, ব্রিটিশ ও আমেরিকানদের দ্বারা শাসিত হয় এসেছে। ১৮৬ সালে আমেরিকানদের সাথে এক চুক্তির মাদ্ধমে দেশটি স্বাধীনতা লাভ করে। মার্শাল দ্বীপপুঞ্জের অধিবাসীদের প্রধান ভাষা হচ্ছে মার্শালিজ  ও ইংলিশ। us ডলার হচ্ছে দেশটির মুদ্রার নাম। দেশটির প্রধান শিল্প হচ্ছে হস্ত শিল্প শুকনো নারকেল সংগ্রহ মাছ ধরা এবং পর্যটন। মার্শাল দ্বীপপুঞ্জের স্বচ্ছ নীল জলরাশিতে প্রায় ১৬০ প্রজাতির কোরাল আর ৮০০ প্রজাতির মাছ রয়েছে। মার্শাল দ্বীপপূঞ্জ কিন্তু ইস্কোভা ড্রাইভারদের জন্য এক কথায় সর্গ।

আরও পড়ুনঃ বিশ্বের সবচেয়ে বড় ১০ টি জাহাজ-Top 10 largest ships in the world

 

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশলিচেনস্টাইন- Liechtenstein

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- লিচেনস্টাইন, অস্ট্রিয়া ও সুইজারলেন্ট মধ্যবর্তি এলাকায় আল্প্স পর্বতের উপর অবস্থিত এই ছোট্ট দেশটির আয়তন মাত্র ১৬০ বর্গ কিলোমিটার। অবাক করা তথ্য হচ্ছে যে ৩৭ হাজার ১৩২ জন অদিবাসীর এই দেশটিতে মাত্র ১.৫ শতাংশ মানুষ বেকার। লিচেনস্টাইন এর মাথা পিচু আয় প্রায় ২৫ হাজার মার্কিন ডলার। রাজতন্ত্র পরিচালিত এই দেশটির রাজধানী হচ্ছে ভাদুজ। ১১ টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত লিচেনস্টাইন এর বৃহত্তম শহর হচ্ছে সান যার আয়তন হচ্ছে প্রায় ২৫ বর্গ কিলোমিটার। লিচেনস্টাইন এর প্রধান শিল্প হচ্ছে লোহা প্রক্রিয়া জাতকরণ আর ছিরামিক এবং ইলেক্ট্রনিক্স সরঞ্জাম তৈরি করা। প্রতি বছর শীতকালে এখানে প্রচুর পর্যটকদের সমাগম ঘটে।

 

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশস্যান ম্যারিনো- San Marino

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- স্যান ম্যারিনো, ইতালির ভেতরে অবস্থিত দেশটির আয়তন হচ্ছে মাত্র ৬১ বর্গ কিলোমিটার। ৩০ হাজার জনসংখ্যার দেশটিতে কিন্তু পৃথিবীর সবথেকে পুরোনো প্রজাতন্ত্র ব্যবস্থা চালু রয়েছে যা খিস্টপূর্বে ৩০১অব্দে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। ৯ টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত দেশটির রাজধানী হচ্ছে স্যান ম্যারিনো সিটি। স্যান ম্যারিনো কিন্তু জিলিপির দিকথেকেও বিশ্ব সেরা। মজার বিষয় হচ্ছে যে স্যান ম্যারিনোতে যতগুলো যানবাহন আছে তারচেয়ে মানুষের সংখ্যা কম। স্যান ম্যারিনোর অর্থনৈতিক আয়ের প্রধান উৎস হচ্ছে পর্যটন, টেক্সটাইল আর ব্যাংকিং।

 

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশটুভালু- Tuvalu

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- টুভালু, ৫ টি উপরোদ বেষ্টন কারী প্রবাল প্রাচীর আর ৪ টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত দেশ টুভালু। পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত দেশটির আয়তন হচ্ছে মাত্র ২৬ বর্গ কিলোমিটার। সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে মাত্র ৪.৫ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত টুভালু বিশ্বের নিচু দেশগুলোর মধ্যে উন্নতম। একটি মাত্র বিমানবন্দর রয়েছে দেশটিতে যা রাজধানী ফুনাফুটিতে অবস্থিত। খ্রিস্টীয় প্রথম শতাব্দীতে টুভালুতে প্রথম বসতি স্থাপন করে পলিনেশিয়ানরা। ১৯৭৬ সাল থেকে টুভালুতে ব্রিটিশরা কলোনি স্থাপন করে। কিন্তু ১৯৭৮ সালে টুভালু স্বাধীনতা অর্জন করে। ৬ হাজার ১৯৪ জন অদিবাসীর দেশটিতে সাংবিধানিক রাজতন্ত্র চালু রয়েছে। স্নোরকেলিং এবং সাঁতারের জন্য বিখ্যাত দেশটিতে রয়েছে চমৎকার আবহাওয়া যা প্রতি বছর প্রচুর পর্যটককে আকৃষ্ট করে।

 

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশনাউরু- Nauru

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- নাউরু, বিশ্বের তৃতীয় ক্ষুদ্রতম দেশটি হচ্ছে নাউরু। দেশটির আয়তন মাত্র ২১ বর্গ কিলোমিটার। পৃথিবীর সচেয়ে বড় এই ফসফেট দ্বীপ রাষ্টের জনসংখ্যা হচ্ছে মাত্র ৯ হাজার ৩৭৮ জন। ১৯৬৯ থেকে ১৯৭০ সাল পর্যন্ত ফসফেট অরোন ছিল দেশটির প্রধান অর্থনৈতিক আয়ের উৎস। কোরালরিপ দিয়ে পরিবেষ্ঠিত দ্বীপে রয়েছে সুন্দর শুভ্র সৈকত। সীমিত পর্যটন ফসফেটের খুনি আর নারকেল যাদব খাবার তৈরি করা এখানকার মানুষের প্রধান জীবিকা।

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশমোনাকো- Monaco

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- মোনাকো, পশ্চিম ইউরোপে অবস্থিত দেশটির আয়তন হচ্ছে মাত্র ২ বর্গ কিলোমিটার। কিন্তু জনসংখ্যা ঘনত্বের দিকথেকে মোনাকোর অবস্থা কিন্তু উপরের দিকেই। মোনাকোর মোট জনসংখ্যা হচ্ছে ৩৬ হাজার ৯৫০ জন। গ্রেমার্লি পরিবার নিয়ন্ত্রীত সাংবিধানিক রাজতন্ত্র চালু রয়েছে এখানে। একটি মাত্র শহর নিয়ে তৈরি দেশটি মন্টি কার্লো ক্যাসিনোর জন্য বিখ্যাত। দেশটির জেডিপেও উল্লেখ করার মতো। প্রায় ৬.৭ বিলিয়ন us ডলার। ১৯২৯ সালে শুরুহওয়া ফর্মুলা ওয়ানের মোনাকো গ্ৰেমপ্রেক্সের জন্যও বিখ্যাত এই দেশটি। আরো মজার তথ্য হচ্ছে এই দেশে কোন ইনকামট্যাক্স দিতে হয়না কোনো নাগরিকদের।

 

সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশভ্যাটিকান সিটি- Vatican City

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০টি দেশ- ভ্যাটিকান সিটি, ইতালির রম শহরে মধ্যে অবস্থিত ভ্যাটিকান সিটি হচ্ছে পৃথিবীর সবথেকে ছোট রাষ্ট্র। হলিসি নামে খ্যাত ভ্যাটিকান সিটির আয়তন মাত্র ১০০ একর বা। .৪৪ বর্গ কিলোমিটার। ভ্যাটিকান সিটিকে বিশ্বের সবথেকে কম জনসংখ্যার দেশ বলা হয় কারণ এখানে মাত্র ৮৪২ জন অদিবাসী বাস করে। বিশ্বের বৃহত্তম চার্জ সেইমপিটার্স বেসেলিয়া ভ্যাটিকান সিটিতে অবস্থিত। রোমের বিষয়ক শাষিত এই ছোট্ট দেশে পৃথিবীর সবথেকে ক্ষুদ্রতম রেল লাইনও আছে যার ধর্গ হচ্ছে ১.২৭ কিলোমিটার। সেইমপিটার্স বেসেলিয়া ভ্যাটিকার মুজিযান এবং চিস্তির চ্যাপেল হচ্ছে ভ্যাটিকানের মূল আকর্ষণ। এই ছোট্ট দেশে প্রতি বছর প্রায় ৪০ লক্ষ দর্শন অর্থির আগমন ঘটে। ইতালি একত্রে করনের সময় এক চুক্তির মাধ্যমে ভ্যাটিকান সিটির জন্ম হয়। ১৯২৯ সালে ১১ওই ফেব্রোয়ারী স্বাধীন মর্যাদা পায় ভ্যাটিকান সিটি।

 

তো বন্ধরা আজ এই পর্যন্তই ,আশাকরি আপনাদের ভালো লেগেছে। যদি কোনো ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। ধন্যবাদ আপনাকে আর্টিকেলটি পরার জন্য ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন বিদায় নিচ্ছি আজকের মত আল্লাহ্‌ হাফেজ।

আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন ( Flashfilex.com ) এর সাথে । যুক্ত হতে – এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.